ম্যাটস পড়ে উচ্চ শিক্ষা

0
1319
MATS কি এবং কেন পড়বেন
MATS কি এবং কেন পড়বেন

ম্যাটস পড়ে উচ্চ শিক্ষাঃ

অনেকেই মনে করে ৪ বছরের ম্যাটস কোর্স কমপ্লিট করার পরে আর কোন পড়ার অপশন নেই। হ্যা, তা নেই, কিন্তু কিছু সিস্টেম চালু আছে কিছু কিছু ভার্সিটিতে।
আমাদের ম্যাটসের সার্টিফিকেট ইন্টারের সমমান হিসেবে ধরা হয়। জানি চার বছরের সার্টিফিকেট কখনোই ২ বছরের সমান হওয়া উচিত না, কিন্তু এইটাই সায়েন্স…. মানে এইটাই আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা। যাই হোক, কিছুদিন আগে শুনেছিলাম উম্মুক্ত ভার্সিটি গুলো ম্যাটসদের অনুমোদন দিচ্ছে যেটা নিয়ে আমি সিউর না। কেউ অনুমোদন পেলে অবশ্যই এই অবহেলিত জাতীকে জানিয়ে সাহায্য করতে পারেন। আমি আজকে কিছু প্রাইভেট ভার্সিটির কথা বলব।

দেশের যেকোন ভার্সিটি চাইলে তাদের নিজের শিক্ষা ব্যবস্থায় ছাড় দিয়ে ভর্তি রিকোয়ার্মেন্ট পরিবর্তন করতে পারে। নর্থ-সাউথ বা ব্র‍্যাকের মত প্রতিষ্ঠান চাইলে ম্যাটসদের ও ভর্তি নিতে পারে কোন ব্যাচেলর প্রোগ্রামে, কিন্তু তারা নেবে না। এই সুযোগটা দেশের হাতে গোনা কয়েকটা প্রাইভেট ভার্সিটি দিচ্ছে মাত্র। যেমন-
১) বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ সায়েন্সেস

২) প্রাইমেশিয়া ইউনিভার্সিটি

৩) খাজা ইউনুস আলী ইউনিভার্সিটি

৪) স্ট্যামফোর্ট ইউনিভার্সিটি

৫) ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি

এই ভার্সিটি গুলো আমাদের ম্যাটসের সার্টিফিকেটকে ইন্টারের সমমান ধরে ব্যাচেলরে ভর্তির অনুমোদন দেয়। যেকোন ইন্টারের শিক্ষার্থীও ভর্তি হতে পারে।
এখন আসি কোন ইউনিভার্সিটিতে কি কি ফ্যাসিলিটিস আছে।

প্রাইমেশিয়াতে ম্যাটসের জন্য দুইটা সাব্জেক্ট আছে যা পড়ার মত। একটা মাইক্রোবায়োলজি। ক্রেডিট ১৪৬। মোট খরচ পড়বে ৩,৯৯,৪৫০ টাকা। এছাড়া পাব্লিক হেলথের মধ্যে আছে পাব্লিক হেলথ নিউট্রিশন। ক্রেডিট ১৫৫। খরচ ৩,৯২,০০০ টাকা। দুইটাই ৪ বছরের কোর্স, ১২ সেমিস্টার।

খাজা ইউনুস আলী ইউনিভার্সিটিতে শুধু মাইক্রোবায়োলজি আছে আমাদের জন্য। মোট ক্রেডিট ১৩৩। সেমিস্টার ৮। খরচ পড়বে ৩ লাখ টাকার মত।

স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটিতেও পড়ার মত সাব্জেক্ট আছে মাইক্রোবায়োলজী। তাছাড়া ফার্মেসি সাব্জেক্টও আছে, যদি কেউ ইন্টারেস্টেড হয়। মাইক্রোবায়োলজিতে মোট খরচ পড়বে ৪ লক্ষ ৯৫ হাজার টাকা। ক্রেডিট ১৪৬ । ফার্মেসি সাব্জেকটে পড়বে ৬ লক্ষ ৬৮ হাজার ২০০ টাকা। মোট ১৬১ ক্রেডিট ঘন্টা।

ড্যাফডিলে ডিপ্লোমাদের জন্য একটাই কোর্স আছে । নিউট্রিশন অ্যান্ড ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং, পাব্লিক হেলথ। ১১৫ ক্রেডিট ঘন্টা । ১০ সেমিস্টারে মোট খরচ হবে ৩ লক্ষ ৭২ হাজার টাকা।

আমাদের ডিপ্লোমাদের জন্য আমি যেটা সাজেস্ট করব, সেটা হচ্ছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ সায়েন্সেস (BUHS) । এটা বার্ডেম এর একটা প্রতিষ্ঠান। আমি নিজে এখানে পড়তেছি। এখানে পাব্লিক হেলথের মোট ৬ টা সাব্জেক্ট আছে নিউট্রিশন, রিপ্রোডাক্টিভ অ্যান্ড চাইল্ড হেলথ, হেলথ প্রোমশন অ্যান্ড হেলথ এডুকেশন, অকাপেশনাল হেলথ অ্যান্ড সেফটি, এনভায়রনমেন্টাল হেলথ, এপিডেমিওলজি। বেসিক সায়েন্স সাব্জেক্ট গুলোর মধ্যে আছে মাইক্রোবায়লজি ও বায়োকেমিস্ট্রি। আর হেলথ ইঞ্জিনিয়ারিং এর মধ্যে ল্যাব টেকনোলজি আর রেডিওলজি। সব গুলোতেই ডিপ্লোমারা অ্যাপ্লাই করতে পারবে। তবে হ্যা, এখানে তুলনামূলক খরচ একটু বেশি। পাব্লিক হেলথ এর সাব্জেক্ট গুলোতে খরচ পড়বে ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, বাকি গুলোতে ৫ লক্ষ ৫০ হাজার। তবে সাধারনত সবার জন্যই কিছু টাকা (১০-২০ হাজার) ওয়েভার থাকেই। আর ডিপ্লোমাদের আরো অনেক ছাড় দেওয়া হয়, সব মিলিয়ে প্রায় ৬০-৭০ হাজার এর মত ছাড় আসার কথা। এখানে মোট সেমিস্টার ৮ টা। ক্রেডিট ১৬০।

 

এখন আসি কিভাবে কোন ভার্সিটি বেছে নেব, সেই বিষয়ঃ বিশ্বের ৩০০০ টপ ভার্সিটি র‍্যাঙ্কিং এর মধ্যে লাষ্টের দিকে বাংলাদেশের মাত্র ৪ টা ইউনিভার্সিটি আছে । অর্থাৎ বাইরের দেশগুলোতে বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার অবস্থা সম্পর্কে কি ধারনা জন্মাবে, তা আর বলা লাগবেনা। অনেক দেশেই আমাদের সর্বোচ্চ ভার্সিটিগুলোর নামও শুনেনি কখনো। এসব দেশে আমাদের দেশ থেকে কেউ অ্যাপ্লাই করলে তার ক্রেডিট ঘন্টা দেখা হয়। যার ভার্সিটির যত ক্রেডিট, তাকে গ্রহন করার পসিবিলিটি তত বেশি।

কেন করব এই উচ্চ শিক্ষাঃ এটা নিয়ে আশা করি আর বলা লাগবে না, তবুও কিছু পাব্লিক বলবে, “কি হবে এসব করে…!” আমাদের প্রত্যাশা অনেক, আমাদের জাতীর যে অবস্থা, তাতে সফলতা এভাবে সম্ভব না। অনেকেই ম্যাটসে পড়েছে ভুল করে, কেউ ম্যাটসে পড়ার পরে ভুল বুঝছে, তাদের জন্য এই একটা পথ খোলা আছে। অনেকে আবার বিসিএস বিসিএস করে পাগল, যদিও বিসিএসএর লাখ লাখ পরিক্ষার্থীর মাঝে আপনি কয় নাম্বারে থাকবেন তা বলতে পারবোনা, তবুও বলি যে হ্যা, এই কোর্স করে বিসিএস ও দেওয়া সম্ভব। তবে এই ডিগ্রিগুলো আপনি কখনো আপনার ডিএমএফ ডিগ্রির সাথে লাগাতে পারবেন না, কারন এগুলো সম্পুর্ন সতন্ত্র ডিগ্রি। মুলত যারা গবেষনা বা উদ্ভাবনী মূলক কাজে আগ্রহী, তাদের জন্য এই কোর্স গুলো পার্ফেক্ট, শুধু টাকা আয় করার জন্য আপনি এইদিকে আসলে ভুল করবেন ।কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করতে পারেন, যথাসাধ্য উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব।