রেডিওলজী ও ইমেজিং

0
8

রেডিওলজী ও ইমেজিং(রেডিওগ্রাফী)

★রেডিওলজী ও ইমেজিং(রেডিওগ্রাফী):
রেডিওলজি ও ইমেজিং, চিকিৎসা বিজ্ঞানে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তাদের এনাটমি বিষয় সম্পর্কে এবং মানুষের শরিরের সকল হাড় সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা থাকতে হয়, কারণ তারা X-Ray, CT-Scan, MRI, ECO, Dental X-Ray প্রভৃতি করে থাকেন।
★কোর্সের সময়সীমাঃ
ডিপ্লোমা ইন মেডিকেল টেকনোলজি (রেডিওলজী ও ইমেজিং) কোর্সটির ব্যাপ্তিকাল ৩ বছর। একে ৩টি ধাপে ভাগ করা হয়েছে।
১ম, ২য়,ও ৩য় বর্ষ।
★প্রথম দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষে বাংলাদেশ রাষ্ট্রীয় চিকিৎসা অনুষদের অধীনে একটি করে চূড়ান্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।
উক্ত পরীক্ষা সমূহ প্রত্যেক বছরের জানুয়ারী মাসে অনুষ্ঠিত হয় এবং জানুয়ারী মাসের পরিক্ষায় অকৃতকার্যদের জন্য জুলাই মাসে সাপ্লিমেন্ট পরিক্ষা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।
★দ্বিতীয় বর্ষে চূড়ান্ত পরীক্ষার পর দেশের যেকোনো সরকারি হাসপাতালে ১৮ সপ্তাহ মাঠ প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করতে হয়।
★শিক্ষাদান পদ্ধতিঃ
১. লেকচার ক্লাস
২. টিউটোরিয়াল পদ্ধতিতে প্রশিক্ষন।
পরীক্ষা পদ্ধতিঃ
১. কোর্স চলাকালীণ সময়ে, কার্ড/আইটেম কার্ড পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
২. ১ম,২য়,ও ৩য় বর্ষে চুড়ান্ত পরীক্ষা অনুুষ্ঠিত হবে।
৩. ভাইভা অনুষ্ঠিত হবে।
★প্রথম বর্ষের বিষয় সমূহঃ
১. ইংরেজী
২. পদার্থ বিজ্ঞান
৩. রসায়ন বিজ্ঞান
৪. বেসিক হিউম্যান এনাটমী
৫. বেসিক হিউম্যান ফিজিওলজি
৬. বেসিক কমিউনিটি মেডিসিন
৭. বেসিক মাইক্রোবায়োলজি, প্যারাসাইটোলজি ও ফাস্ট এইড।
★দ্বিতীয় বর্ষের বিষয় সমূহঃ
১. রেডিওলজিক্যাল এনাটমী, ফিজিওলজি এন্ড প্যাথলজি।
২. রেডিওলজিক্যাল ফিজিক্স এন্ড ইক্যুইপমেন্টস।
৩. রেডিওলজিক্যাল প্রসিডিওর (জেনারেল এন্ড কন্ট্রাস্ট)
৪. রেডিওগ্রাফিক ফটোগ্রাফী এন্ড কোয়ালিটি এসুরেন্স
৫. বেসিক কম্পিউটার সায়েন্স।
★তৃতীয় বর্ষের বিষয় সমূহঃ
১. এডভান্সড রেডিওলজি এন্ড ইমেজিং প্রসিডিওর।
২. রেডিওয়েশন বায়োলজি এন্ড পেশেন্ট কেয়ার।
৩. বেসিক কনসেপ্টস অব রেডিওলজিক্যাল ফাইন্ডিংস।
★রেডিওলজী ও ইমেজিং(রেডিওগ্রাফী)
এই ডিপার্টমেন্ট থেকে ডিপ্লোমা শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে বিএসসি করতে পারবেন। এবং বিএসসির পর বিসিএস পরীক্ষা দিতে পারেন।